প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস মোকাবেলায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের উদ্যোগে বিশ্বখ্যাত মেডিক্যাল যন্ত্রপাতি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান মেডট্রনিক্স ও ওয়লটনের কারিগরি সহযোগিতায় দেশেই তৈরি হলো বিশ্বমানের পিবি ৫৬০ মডেলের স্পেসিফিকেশনে ‘ডাব্লিউপিবি ৫৬০ ভেন্টিলেটর’। আগামীকাল বুধবার ছাড়পত্রের জন্য এটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে পাঠানো হবে।

আজ মঙ্গলবার জুমে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ওয়ালটন কর্তৃক দেশে তৈরি ভেন্টিলেটরের তিনটি মডেলের ফাংশনাল প্রোটোটাইপ শিগগিরইর ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে পাঠানো হবে। তাদের ছাড়পত্র পাবার পরই ওয়ালটন পরীক্ষামূলক ও বাণিজ্যিক উৎপাদনে যেতে পারবে দেশিয় প্রতিষ্ঠানটি।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জানান, শুধু ভেন্টিলেটর নয়, আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে আমরা ‘কনট্রাক্ট ট্রেসিং’ প্ল্যাটফর্ম চালু করতে পারব বলে আশা করছি। এতে স্মার্টফোনের মাধ্যমেই করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত করা আরো সহজ হবে।

তিনি বলেন, ফাংশনাল প্রোটোটাইপের তিনটি ভেন্টিলেটরের মধ্যে একটি ওয়ালটন মেডট্রনিক্সের সাথে তৈরি করেছে। অন্য দুটি ওয়ালটনের নিজস্ব উদ্ভাবন টিম তৈরি করেছে। মেডট্রনিক্সের সাথে তৈরিকৃত এ ভেন্টিলেটরের নাম দেওয়া হয়েছে ডাব্লিউপিবি ৫৬০। আর ওয়লটনের নিজস্ব উদ্ভাবনে তৈরিকৃত ভেন্টিলেটরের নাম ‘ওয়ালটন কোভিড বিল্ড ভেন্টিলেটর ২০২০’ বা ডব্লিউসিভি-২০ এবং ডব্লিউএবি-২০’।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, আমরা আশা করছি করোনা মহামারি খুব দ্রুতই শেষ হবে। কিন্তু মহামারি দীর্ঘ হলে আমরা দেশে তৈরি মানসম্মত ভেন্টিলেটরের দ্বারা চাহিদা পূরণ করতে আমরা সক্ষম হব। ইতিমধ্যে এটুআই ইনোভেশন ল্যাব থেকে ১৮টি ভেন্টিলেটর তৈরি করা হয়েছে। এগুলোর মান যাচাই বাছাই করা হচ্ছে।

আইসিটি বিভাগের উদ্যোগকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য মেডিট্রনিক্স এবং ওয়ালটনের সাথে সমন্বয় করার জন্য তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের এলআইসিটি প্রকল্পকে ধন্যবাদ জানান।

গোলাম মোর্শেদ বলেন, এফডিএ সার্টিফাইড এ ভেন্টিটেরটির যন্ত্রাংশের যোগান দিচ্ছে মেডট্রনিক। তারা পাঁচটি দেশের পাঁচটি কম্পানির সাথে যৌথ উদ্যোগে উৎপাদনে যাওয়ার ব্যাপারে একমত হয়। ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ ট্যাগযুক্ত এ ভেনিটলেটরের সংযোজন হবে ওয়ালটনের কারখানায়।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, এলআইসিটি প্রকল্পের পলিসি অ্যাডভাইজার সামি আহমেদ, ওয়লটনের ভেন্টিলেটর প্রকল্প প্রধান প্রকৌশলী গোলাম মোর্শেদ, নির্বাহী পরিচালক লিয়াকত আলী, মেডিট্রনিক্সের প্রতিনিধি ভার্চুয়াল সম্মেলনে বক্তব্য দেন যোগ দেন।